নিকলীতে পাথর বোঝাই ট্রলার ডুবে নিখোঁজ ৩

নিকলীতে পাথর বোঝাই ট্রলার ডুবে নিখোঁজ ৩
Spread the love

নিকলী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি:

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের সিংপুর বাজারের সংলগ্ন এমারচর ঘাটে ছাতক থেকে পাথর বোঝাই একটি ষ্টীলবডি বলগেট ঢাকার কাচঁপুর ফেরার পথে ধনু নদীতে ডুবে বলগেটের ভেতরে থাকা চারজন শ্রমিকের মধ্যে এলাকাবাসী একজনকে জীবিত উদ্ধার করলেও তিনজন নিখোঁজ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে নিকলী উপজেলা সিংপুর বাজার ঘাট সংলগ্ন এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ শ্রমিকদের বাড়ি বড়গুনার তালতলির নিদ্রাসম গ্রামে।

নিখোঁজ শ্রমিকরা হচ্ছেন, বড়গুনা তালতলির নিদ্রাসম গ্রামের আল আমিন (২৭) একই গ্রামের মহসিন মিয়া (৫০) ও মইন উদ্দিন (৫০)। উদ্ধার হওয়া শ্রমিক হলো মহসিন মিয়া (৩৭)।

উদ্ধার শ্রমিক মহসিন মিয়া জানান, তিন দিন আগে সিলেটের ছাতক থেকে বল্টারটি বুঝাই করে ঢাকা কাঁচপুর ফেরার পথে নিকলীর সিংপুর বাজার ঘাট সংলগ্ন এমারচর এলাকায় গত বুধবার সন্ধ্যায় (১০জানুয়ারি) নোঙর করি। এখানে প্রতিদিন রাতে এক সাথে অনেকগুলো বলগেট ,র্কাগো নোঙর করে। সকাল সাতটায় আমি ঘুম থেকে উঠে বাইরে আসি।এর ৩০ মিনিটের মধ্যেই বলগেটটি পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে দেখে আমি চিৎকার দিয়ে নদী ঝাপদেয়। পরে স্থানীয় এলাবাসী আমাকে অচেতন অবস্থায় পানি থেকে উদ্ধার করে। সাথে থাকা ওই তিনজন বলগেটটের ভিতরেই ছিল।তাদের কী অবস্থা হয়েছে আমি কিছু বলতে পারবো না।

এলাকার লোকজন জানান, বলগেটটি অনেক পুরাতন থাকার কারণে পাথরের চাপে কোনো জায়গায় ফাটল হওয়ার কারণে ধনু নদীতে ডুবে যায় বলগেটটি । সাথে সাথে আশপাশের লোকজন উদ্ধার অভিযান চালায়। কিন্তু এরই মাঝে প্রায় বিশ হাত পানির নিছে ডুবে গেছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন নিকলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কারার সাইফুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াহ্ ইয়া খাঁন, ওসি নাসির উদ্দিন ভূইয়া।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বলগেটটি অনেক পুরাতন হওয়ার কারণে এ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। স্থানীয় ডুবুরি দল দিয়ে নিখোঁজদের লাশ উদ্ধার করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এ রিপোট লেখা পর্যন্ত কোনো লাশ উদ্ধার হয়নি।

Share this...
Share on FacebookPrint this pageShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn



Skip to toolbar